সোমবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

হাল্যান্ড নন, আচরণবিধি লঙ্ঘনে অভিযুক্ত হয়েছে ম্যানসিটি!

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

ক্রীড়া ডেস্ক:

রেফারির সমালোচনা করে শাস্তির শঙ্কার মুখে ছিলেন ম্যানচেস্টার সিটি ফরোয়ার্ড আর্লিং হাল্যান্ড। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন তিনি। তার জায়গায় ইংলিশ ক্লাবটিকে অভিযুক্ত করেছে ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন।
ঘটনাটা ছিল ম্যানসিটি-টটেনহান ৩-৩ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচে। ৯০ মিনিটে ম্যাচে সমতা ফেরায় স্পাররা। তার পর অবশ্য জয়ের সুবর্ণ সুযোগ ছিল সিটির। সিটির ক্ষোভের জায়গাটা ছিল স্টপেজ টাইমের পঞ্চম মিনিটে তাদের সেই সুযোগ থেকে বঞ্চিত করেছেন রেফারি হুপার। হাল্যান্ডের দেওয়া থ্রু বল ধরে গোল মুখে ছুটে যাচ্ছিলেন জ্যাক গ্রিয়েলিশ। কিন্তু সেই মুহূর্তে বাঁশি বাজিয়ে ফ্রি কিকের সিদ্ধান্ত হুপার। ঠিক তার আগের মুহূর্তে হাল্যান্ড স্পার ডিফেন্ডারদের দ্বারা ফাউলের শিকার হয়েছিলেন। তাৎক্ষণিকভাবে হাল্যান্ড সেই অবস্থা সামলে গ্রিয়েলিশকে বল পাসও দেন। কিন্তু গ্রিয়েলিশ গোলমুখে ছুটে যাওয়ার মুহূর্তে বাঁশি বাজান রেফারি। তাৎক্ষণিক এমন সিদ্ধান্ডে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন হাল্যান্ড। মাঠেই এর প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে হলুদ কার্ড দেখেছেন। নতুন করে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স-এ গালি দিয়ে প্রতিক্রিয়াও জানিয়েছিলেন। যা ছিল আচরণ বিধির লঙ্ঘন।
কিন্তু এফএ সিটিকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে। তাদের মূল কথা হলো প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নরা তাদের খেলোয়াড়দের নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন।
এফএ- এর সূত্র ইএসপিএনকে জানিয়েছে, হাল্যান্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দেওয়ায় কোনও ধরনের বিধি ভঙ্গ হয়নি তার। তবে মাঠে রেফারির সঙ্গে রাগতস্বরে তিনি যেভাবে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন সেটা ছিল শাস্তিযোগ্য অপরাধ। ভাগ্য ভালো নরওয়েজিয়ান তারকা আচরণ বিধি লঙ্ঘনের শাস্তিটি এড়াতে পেরেছেন।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন