শুক্রবার, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সংঘাত বন্ধ, জিম্মিদের মুক্তি নিয়ে হামাসের প্রস্তাব নাকচ নেতানিয়াহুর

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ফিলিস্তিনে চলমান ইসরায়েলি আগ্রাসনের ইতি টানা হলে হামাসের হাতে জিম্মি ইসরায়েলি নাগরিকদের মুক্তি দেওয়া হবে, এমন একটি প্রস্তাব গতকাল রবিবার নাকচ করে দিয়েছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। হামাসকে পুরোপুরি পর্যদুস্ত না করা পর্যন্ত সামরিক অভিযান অব্যাহত রাখা হবে বলে জানান তিনি। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এ খবর জানিয়েছে।
ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের দিক থেকে প্রস্তাব ছিল, গাজা থেকে ইসরায়েলি সেনাদের প্রত্যাহার করা হলে, দেশটির কারাগারে আটক ফিলিস্তিনিদের মুক্তি দেওয়া হলে এবং গাজায় হামাস কর্তৃপক্ষের কর্তৃত্ব মেনে নেওয়া হলে এর বিনিময়ে তারা জিম্মি ইসরায়েলি নাগরিকদের ছেড়ে দেবে।
বর্তমানে হামাসের হাতে ১৩৬ জন ইসরায়েলি নাগরিক জিম্মি রয়েছেন। তাদের মুক্ত করে নিরাপদে ফিরিয়ে আনার জন্য নেতানিয়াহুর ওপর ক্রমশ চাপ বাড়ছে।
জিম্মি নাগরিকদের পরিবার নেতানিয়াহুকে চাপ দিচ্ছে তাদের প্রিয়জনদের ফিরিয়ে আনতে সমঝোতায় পৌঁছাতে। গত রবিবার সন্ধ্যায় জিম্মি ও নিখোঁজ ইসরায়েলিদের পরিবারের সদস্যরা জেরুজালেমে নেতানিয়াহুর বাসার সামনে বিক্ষোভ করে জানিয়েছে, জিম্মিদের মুক্তির বিষয়ে কোনো সমঝোতায় না পৌঁছানো পর্যন্ত তারা ওই স্থান ত্যাগ করবে না।
এদিকে স্বাধীনত ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রকে স্বীকৃতি না দেওয়া সিদ্ধান্ত নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিন্টে জো বাইডেনের প্রশাসনের সঙ্গেও দুরত্ব বাড়ছে নেতানিয়াহুর।
তবে বিক্ষোভের মুখেও নিজের অবস্থানে অনড় নেতানিয়াহু। তার মতে, হামাসের শর্ত মেনে নেওয়ার মানে হলো, সশস্ত্র গোষ্ঠীকে ’অক্ষত’ অবস্থায় ছেড়ে দেওয়া এবং ইসরায়েলি সেনাদের ত্যাগ বৃথা যাওয়া।
ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা যদি এই শর্ত মানি তাহলে আমাদের নাগরিকদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিতে পারব না। ঘরছাড়া মানুষদের তাদের গৃহে নিরাপদে ফিরতে দিতে পারব না। আরেকটি ৭ অক্টোবর তখন কেবল সময়ের ব্যাপার।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন