বুধবার, ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ১১ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বুধবার, ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ১১ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শেখ হাসিনাকে ভারত, রাশিয়া, চীনের অভিনন্দন

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

দেশবার্তা ডেস্ক:

দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জনের জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত প্রণয় ভার্মাও গতকাল সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার বাসভবন গণভবনে দেখা করে তাকে নিজ দেশের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন ও রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্ডার ভিকেন্তিয়েভিচ মান্টিটস্কিও গতকাল সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে নিজ নিজ দেশের পক্ষ থেকে অভিনন্দনবার্তা জানিয়েছেন।

 

অভিনন্দন জানিয়েছেন ভুটান, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, শ্রীলংকা, নেপাল, পাকিস্তান, ব্রাজিল ও মরক্কোর রাষ্ট্রদূতরাও।

সন্ধ্যায় শেখ হাসিনাকে টেলিফোন করে নির্বাচনে বিজয় উপলক্ষে অভিনন্দন জানান নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সহকারী প্রেস সচিব-১ এমএম ইমরুল কায়েস সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নরেন্দ্র মোদি গতকাল সন্ধ্যা ৭টার দিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে একটি পোস্ট দেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলেছি। সংসদ নির্বাচনে টানা চতুর্থবারের মতো ঐতিহাসিক বিজয়ের জন্য তাকে অভিনন্দন জানিয়েছি।

 

নির্বাচন সফলভাবে পরিচালনার জন্য আমি বাংলাদেশের জনগণকেও অভিনন্দন জানাই। আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের স্থায়ী ও জনকেন্দ্রিক অংশীদারত্বকে আরো জোরদার করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

 

এর আগে সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেগণভবনে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ভারত, রাশিয়া, চীন, ভুটান, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর ও শ্রীলংকার রাষ্ট্রদূতরা। প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব মো. নুর এলাহি মিনা জানান, রাষ্ট্রদূতরা নিজ নিজ দেশের পক্ষে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

 

এ সময় প্রধানমন্ত্রী তাদের ধন্যবাদ জানান এবং বাংলাদেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রধানমন্ত্রীকে চীনা রাষ্ট্রদূতের শুভেচ্ছা জানানো প্রসঙ্গে ঢাকার চীনা দূতাবাসের পক্ষ থেকে দেয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শেখ হাসিনাকে চীনা নেতাদের পক্ষ থেকে উষ্ণ অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন।

 

এ সময় বেইজিংয়ের সঙ্গে ঢাকার দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বকে এগিয়ে নেয়ার পাশাপাশি পারস্পরিক আস্থা বৃদ্ধি ও সহযোগিতাকে আরো গভীর করার প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেছেন তিনি। এছাড়া চীন-বাংলাদেশ সহযোগিতামূলক কৌশলগত অংশীদারত্ব নতুন উচ্চতায় উন্নীত হবে বলেও প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন চীনা রাষ্ট্রদূত।

বিজ্ঞপ্তিতে ইয়াও ওয়েনের বরাত দিয়ে বলা হয়, উন্নয়ন ও পুনরুজ্জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে রয়েছে দুই দেশ। আধুনিকায়নের পথে চীন সবসময় বাংলাদেশের সবচেয়ে বিশ্বস্ত অংশীদার ও নির্ভরযোগ্য বন্ধু হবে।

চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে চীন ও বাংলাদেশ পারস্পরিক সম্মান ও উভয়ের স্বার্থ অক্ষুণ্ন রাখে এমন মডেল স্থাপন করেছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘‌জাতীয় সার্বভৌমত্ব, স্বাধীনতা ও আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষা ও বাইরের হস্তক্ষেপের বিরোধিতায় বাংলাদেশকে দৃঢ়ভাবে সমর্থন করবে চীন। ঐক্য ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে এবং আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক বিষয়ে আরো সক্রিয় ভূমিকা পালনেও বাংলাদেশকে সহায়তা করবে।’

চীন বাংলাদেশের সঙ্গে সর্বাত্মক সহযোগিতা জোরদার করতে প্রস্তুত উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন বলেন, ‘‌বাণিজ্য বিনিয়োগ সহজীকরণ ও সম্প্রসারণ এবং বেল্ট অ্যান্ড রোড উদ্যোগের আওতায় যথাযথ সহায়তা দিতে প্রস্তুত চীন।’

‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বাস্তবায়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতিও ব্যক্ত করেন তিনি।

আওয়ামী লীগের সভানেত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে বার্তা পাঠিয়েছেন ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক। এ বিষয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভুটান দূতাবাসের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের জন্য অভিনন্দন জানিয়ে ভুটানের রাজা বলেছেন,

‘‌প্র‌ধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশে শান্তি, স্থিতিশীলতা ও অভূতপূর্ব অর্থনৈতিক উন্নতি হয়েছে। ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসেবে ভুটান এ অনন্যসাধারণ অর্জনে বাংলাদেশের জনগণের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করছে।’

এ সময় ভুটান ও বাংলাদেশের মধ্যে বিদ্যমান নৈকট্যপূর্ণ ও বিশেষ সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে বলে অভিনন্দনপত্রে উল্লেখ করেন রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক।

কয়েকটি দেশের রাষ্ট্রদূত ছাড়াও আগা খান ডেভেলপমেন্ট নেটওয়ার্কের (একেডিএন) প্রতিনিধিরাও শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বলে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং সূত্রে জানা গেছে।

 

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন