সোমবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মহাখালী ফ্লাইওভারেও দৃষ্টিনন্দন চিত্রকর্ম

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজধানীর মহাখালী উড়ালসড়কের নিচের অংশ এবং পিলারগুলোয় দৃষ্টিনন্দন স্ট্রিট আর্ট (চিত্রকর্ম) কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশের সহযোগিতায় বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে এই স্ট্রিট আর্ট শুরু হয়। স্বাধীনতার মাস মার্চের মধ্যে মহাখালীর উড়ালসড়কে ১৪টি পিলারের সবগুলোতেই স্ট্রিট আর্ট সম্পন্ন করা হবে।
এর আগে ঢাকার মৌচাক-মগবাজার উড়ালসড়কের নিচে এ ধরনের চিত্রকর্ম করিয়েছে ডিএনসিসি। উড়াল সড়কের নিচে নয়নাভিরাম চিত্রকর্ম সেখান দিয়ে চলাচলকারী পথচারীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে।
ডিএনসিসির পক্ষ থেকে বলা হয়, শহরকে সুন্দর ও আকর্ষণীয় করতেই এই উদ্যোগ। এর পাশাপাশি রাজধানীবাসীকে এসব চিত্রকর্মের মাধ্যমে বিভিন্ন ‘শিক্ষণীয়’ বার্তা দেওয়াও এর লক্ষ্য। এর মধ্যে ‘গাছ লাগাই পরিবেশ বাঁচাই’, ‘হর্ন বাজানো নিষেধ’ এমন নানান স্লোগান রয়েছে।


সৌন্দর্য বর্ধনের পাশাপাশি ফ্লাইওভারের বিভিন্ন পিলারে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হবে, যাতে কেউ এসব চিত্রকর্ম নষ্ট করতে না পারে। এই দৃষ্টিনন্দন স্ট্রিট আর্টের ওপর পোস্টার লাগালে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম।
সোমবার (১১ ডিসেম্বর) দুপুরে ডিএনসিসির চিত্রকর্মের কাজ পরিদর্শনকালে তিনি বলেন, আমরা শহরকে দৃষ্টিনন্দন করার জন্য অনেক কাজই করি। কিন্তু দুঃখের বিষয় সে কাজগুলো কিছু দিন পরেই পোস্টারের আড়ালে ঢেকে যায়। মহাখালীতে যে দৃষ্টিনন্দন স্ট্রিট আর্ট করা হয়েছে তার ওপর আমি কোনও পোস্টার দেখতে চাই না। যে পোস্টার লাগাবে তাকে সবাই মিলে প্রত্যাখ্যান করবো। এত সুন্দর চিত্রকর্মের ওপর পোস্টার লাগালে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবো।
এ সময় মহাখালী ফ্লাইওভারের নিচে ফাঁকা জায়গায় টেবিল টেনিস বোর্ড এবং দাবা খেলার বোর্ডের ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে বলেও জানান মেয়র আতিকুল ইসলাম।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন