বুধবার, ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ১১ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বুধবার, ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ১১ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নির্বাচনে শেখ হাসিনা নিজেই নিজের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন: রিজভী

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বিরোধীদের ওপর বুলডোজার চালানোর পর নজিরবিহীন উদ্ভট ডামি নির্বাচনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে চালু হয়েছে এক ব্যক্তির শাসনব্যবস্থা। গোটা বাংলাদেশ এখন তার হাতে জিম্মি। উত্তর কোরিয়া মডেলের এই নির্বাচনে শেখ হাসিনা ছিলেন নিজেই নিজের প্রতিদ্বন্দ্বী। প্রতারণা, শত্রুতা, মিথ্যাকে যদি কোনও শিল্প ধরা হয় তাহলে শেখ হাসিনা সেই শিল্পের নিপুন কারিগর।
শনিবার (১৩ জানুয়ারি) রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন তিনি এসব কথা বলেন।
রিজভী বলেন, ‘কেউ ডামি, কেউ মনোনিত, কেউ নৌকা, কেউ ভোট জমানত হারায়— সবাই তার প্রার্থী। কোনও আসনে কে পাস কে ফেল– সব তার হাতে পূর্বনির্ধারিত। ২৮ থেকে ৪১ শতাংশ ভোট কাউন্ট করার ফর্মূলাও তার। নব উদ্ভাবিত বাকশালের এই লেটেস্ট ভার্সনকে গোটা দেশসহ বিশ্ববাসী ছুঁড়ে ফেলেছে।’
তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রের হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করে ডামি সিইসি ঘুমিয়ে থেকে নির্বাচনের নামে যে সংসদের জন্ম দিয়েছেন, আগামীতে ভোটের মাধ্যমে জবাবদিহিমূলক সরকার গঠিত হলে জনগণের কাছে সেই টাকার হিসাব দিতে হবে।’
নতুন নির্বাচনের দাবি জানিয়ে রিজভী বলেন, ‘শুধু দেশের গণতন্ত্রকামী জনগণই নয়, বিশ্বের মানবাধিকার সংগঠনগুলোও এখন বাংলাদেশে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নতুন নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছে।’
দলের নেতাকর্মীরা কারাগারে দম বন্ধ অবস্থায় জীবনযাপন করছেন জানিয়ে রিজভী বলেন, ‘মানবিক মৌলিক অধিকার হরণের মাধ্যমে নিপীড়ণের সর্বোচ্চ মাত্রা প্রয়োগ করা হয়েছে। সিনিয়র নেতাসহ হাজার হাজার নেতাকর্মী অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসা না পেয়ে অমানবিক জীবনযাপন করছে।’
এ সময় বিএনপির সিনিয়র এই যুগ্ম মহাসচিব অবিলম্বে দলের নেতাকর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন