সোমবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নির্বাচনি প্রতীক বরাদ্দ শুরু

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

নিজস্ব প্রতিনিধি:

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ শুরু হয়েছে। সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) সকালে দেশের সব রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে প্রতীক বরাদ্দ শুরু হয়েছে। প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা নির্বাচনি প্রচারণা শুরু করতে পারবেন।
রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা বিভাগীয় কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ঢাকা মহানগরের ১৫টি সংসদীয় আসনের প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দিচ্ছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা সাবিরুল ইসলাম। সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে সকাল পৌনে ১০টা থেকে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।
গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুযায়ী অনুযায়ী রাজনৈতিক দলের মনোনীত প্রার্থীরা তাদের দলীয় প্রতীক পাচ্ছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থীরা স্বতন্ত্র প্রার্থীদের জন্য নির্ধারিত প্রতীকের মধ্যে বাছাই করে যে কোনও একটি নিতে পারেন। অবশ্য কোনও একটি নির্দিষ্ট প্রতীক একাধিক প্রার্থীর পছন্দ হলে সে ক্ষেত্রে লটারির মাধ্যমে তা চূড়ান্ত করা হয়।
আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা-৪ আসন দিয়ে প্রতীক বরাদ্দ শুরু করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। আজ ঢাকা-৪ থেকে ঢাকা-১৮— এই ১৫টি সংসদীয় আসনের প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে।
এরমধ্যে ঢাকা-৪ আসনে ৯ জন প্রার্থী রয়েছেন। তাদের মধ্যে দুজন স্বতন্ত্র প্রার্থী আওলাদ হোসেন ট্রাক ও মো. মনির হোসেন স্বপন ঈগল প্রতীক পেয়েছেন। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের সানজিদা খানম নৌকা, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মো. ইয়াসিন হোসেন হাতঘড়ি, তৃণমূল বিএনপির রফিকুল ইসলাম সোনালী আঁশ, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. সোহেল ডাব, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তি জোটের সালেহ আহমেদ সোহেল ছড়ি, জাতীয় পার্টির সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা লাঙ্গল, ইসলামী ঐক্য জোটের শাহ আলম মিনার প্রতীক পেয়েছেন।
ঢাকা-৫ আসনে ১২ জন প্রার্থী প্রতীক বরাদ্দ পেয়েছেন। তাদের মধ্যে স্বতন্ত্র দুই প্রার্থী মশিউর রহমান মোল্লা সজল ট্রাক, মো. কামরুল হাসান ঈগল প্রতীক পেয়েছেন। লটারির মাধ্যমে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।
আসনটিতে এই দুই প্রার্থী ছাড়াও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হারুনুর রশিদ মুন্না নৌকা, ইসলামিক ঐক্য ফ্রন্টের আবু জাফর মো. হাবিবুল্লাহ চেয়ার, ন্যাশনালিস্ট ঐক্য ফ্রন্টের এস এম লিটন টেলিভিশন, তৃণমূল বিএনপির মো. আবু হানিফ সোনালী আঁশ, ইসলামী ঐক্য জোটের আব্দুল কায়ুম মিনার, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আরিফুর রহমান আম, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির মোশাররফ হোসেন মিয়া একতারা, বাংলাদেশ কংগ্রেসের সাইফুল আলম ডাব, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির মো. সারওয়ার খান কাঁঠাল, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তি জোটের নুরুল আমিন ছড়ি প্রতীক পেয়েছেন।
ঢাকা–৬ আসনে কোনও স্বতন্ত্র প্রার্থী নেই, দলীয় প্রার্থী ছয় জন। এই আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাঈদ খোকন নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। তবে তিনি প্রতীক নিতে নিজে আসেনি, প্রতিনিধিও পাঠাননি। রিটার্নিং কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তার প্রতিনিধি যখন আসবেন, তখন প্রতীক দেওয়া হবে। এই আসনে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির হামিদুর রেজা খান ভাসানী আম, তৃনমুল বিএনপির কাজী সিরাজুল ইসলাম সোনালী আঁশ, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তি জোটের আক্তার হোসেন ছড়ি, গণফ্রন্টের আমিনুল ইসলাম সরকার মাছ, ইসলামী ঐক্যজোটের রবিউল আলম মজুমদার মিনার, জাতীয় পার্টি–জেপির সৈয়দ নাজমুল হুদা বাইসাইকেল প্রতীক বরাদ্দ পেয়েছেন।
ঢাকা–৭ আসনে কোনও স্বতন্ত্র প্রার্থী নেই, এই আসনে দলীয় ৬ জন প্রার্থী। আওয়ামী লীগের প্রার্থী সোলায়মান সেলিম নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। তিনি নিজে আসেননি, তবে প্রতিনিধি পাঠিয়ে প্রতীক বুঝে নিয়েছেন। এ ছাড়া বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তি জোটের নূর জাহান বেগম ছড়ি, বাংলাদেশ সুপ্রীম পার্টির আফসার আলী একতারা, জাতীয় পার্টির সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন লাঙ্গল, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মাসুদ পাশা আম, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) হাজি মোহাম্মদ ইদ্রিস ব্যাপারি মশাল প্রতীক পেয়েছেন।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন