সোমবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সোমবার, ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৩শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

“নিরাপদ মাতৃত্ব, পরিকল্পিত পরিবার স্মার্ট বাংলাদেশ হোক আমাদের অঙ্গীকার”

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও দেশব্যাপী পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ-২০২৩ উদযাপন করা হচ্ছে। এই উপলক্ষ্যে ৭ই ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বেলা ১১:০০ ঘটিকায় পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর কর্তৃক বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুননেছা মুজিব কনভেনশন হল, মিন্টু রোড, ঢাকায় এক বর্ণাঢ্যআলোচনা ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেবা ও প্রচার সপ্তাহের এবারের প্রতিপাদ্য-
আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (গ্রেড-১) জনাব সাহান আরা বানু, এনডিসি। সেসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব জাহিদ মালেক , এমপি।স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সম্মানিত সচিব জনাব মোঃ আজিজুর রহমান এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, মহাপরিচালক নিপোর্ট, মহাপরিচালক নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর, মহাপরিচালক (গ্রেড-১) স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর এবং মহাপরিচালক স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তাছাড়া মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ এবং অধিদপ্তরের পরিচালক ও লাইন ডাইরেক্টর, উপপরিচালকসহ আমন্ত্রিত অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ, উন্নয়ন সহযোগী, সংস্থার প্রতিনিধিগণ, গণমাধ্যম প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব জাহিদ মালেক , এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে তাঁর বক্তব্যে রাখেন। তিনি পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উপলক্ষ্যে জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা সেবা পৌঁছে দিতে এবং সেবাকেন্দ্র থেকে ২৪/৭ স্বাভাবিক প্রসবসেবা দিতে প্রতিটি উপজেলার একটি করে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের মডেল কেন্দ্রগুলোকে সঠিকভাবে কার্যকর করার আহ্বান জানান।
সভাপতি স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সম্মানিত সচিব জনাব মোঃ আজিজুর রহমান তাঁর বক্তব্যে বলেন ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজি’র লক্ষ্যমাত্রা-৩ অর্জনে তথা মাতৃ ও শিশু মৃত্যু রোধে সেবা ও প্রচার সপ্তাহ-২০২৩ ব্যপক কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে। সবাইকে সেবা ও প্রচার সপ্তাহ সফলভাবে উদযাপন করার আহ্বান জানিয়ে তাঁর বক্তব্য শেষ করেন। উক্ত উদ্বোধনী ও আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে শুদ্ধাচার পুরস্কার ২০২২-২৩ প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানটি সঠিকভাবে পরিচালনা ও আয়োজনের দায়িত্বে ছিলেন- জনাব আবদুল লতিফ মোল্লা, পরিচালক (আইইএম), পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন