বুধবার, ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ১১ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বুধবার, ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ১১ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দাউদকান্দি গৌরীপুর বাজারে পা কাটা আলম বাহিনীর নেতৃত্বে ব্যবসায়ীর টাকা লুট পুলিশের তৎপরতায় ২৪ঘন্টায় উদ্ধার

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

দাউদকান্দি প্রতিবেদক :

দাউদকান্দি গৌরীপুর বাজারে পা কাটা আলম বাহিনীর নেতৃত্বে ব্যবসায়ীর টাকা লুট গৌরীপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ এর তৎপরতায় ২৪ঘন্টায় লুন্ঠিত টাকা উদ্ধার। তাৎক্ষণিক ভাবে লুন্টিত টাকা উদ্ধার হওয়ায় ব্যবসায়ীদের মাঝে স্বস্তি ফিরিয়ে আসে। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার গৌরীপুর দক্ষিণ বাজারে মোশাররফ হোসেন এর মনহারী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে। পরে আজ বুধবার সকালে টাকা লুটকাূ সন্ত্রাসী বোরহান ও তার খালাত ভাই বিল্লাল হোসেন এসে লুট হওয়া ষাট হাজার টাকা ব্যবসায়ী মোশাররফ হোসেন এর নিকট ফেরত দিয়ে যায়।
পুলিশ ও ব্যবসায়ী সূত্রে জানা যায়, কয়কটি কোম্পানীর ডিলার সীপ ব্যবসায়ী মোশাররফ হোসেন প্রতিদিনের ন্যায় সারাদিন ব্যবসা বানিজ্য শেষ সোমবার সন্ধ্যায় হিসাব কাজ করছিল। হত্যা, ডাকাতি, ছিনতাই ও ধর্ষণ মামলার আসামী জেল থেকে ছারা পেয়ে হঠাৎ পা কাটা আলম, ডাকাত বোরহান ও ইয়াবা ব্যবসায়ী নুরা এসে দের লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। ব্যবসায়ী মোশাররফ কিসের টাকা বললে, তারা তাকে অকৈথ্য ভাষা গালাগালিজ করে, পরে ক্যাশে থাকা ষাট হাজার টাকা নিয়ে চলে যায়। ব্যবসায়ী বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন কে জানালে। আলমগীর হোসেন তিন চাঁদাবাজকে ডেকে ব্যবসায়ীর টাকা ফেরত দিতে বলে। পরের দিন মঙ্গলবার টাকা ফেরত দেয়ার কথা থাকলেও বিকেল পাচটার মধ্যে টাকা ফেরত না পাওয়ায়, বিষয়টি মৌখিক ভাবে জানালে, গৌরীপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ইনচার্জ মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ বিষয়টি তাৎক্ষনিক তদন্ত শুরু করেন। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে চাঁদাবাজ বোরহান তার খালাত ভাই বিল্লালসহ এসে ব্যবসায়ী মোশাররফ হোসেনকে লুন্ঠিত ষাট হাজার টাকা ফেরত দিয়ে যায়।
ব্যবসায়ী মোশাররফ হোসেন বলেন, আমি ধন্যবাদ জানাই গৌরীপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ সাহেবকে। আমি বিষয়টি মৌখিক ভাবে জানানোর পর আমার টাকা লুন্ঠনকারীরা দ্রুত ফেরত দিয়ে যায়। আমরা ব্যবসায়ীরা শান্তিতে ব্যবসা করতে চাই, তাই মামলায় জড়াতে চাই নি।
গৌরীপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ইনচার্জ মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, এমন একটি ঘটনার কথা ব্যবসায়ী মৌখিক ভাবে বলেছে, বিষয়টি তদন্ত করার জন্য কয়েক জায়গায় ফোন দেওয়ার সাথে সাথে টাকা লুন্ঠনকারী বোরহান তার খালাতোম ভাই বিল্লাল নিয়ে ব্যবসায়ীর টাকা ফেরত দিয়েছে। ব্যবসায়ী মামলা লিখিত অভিযোগ দিলে তাদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন