শুক্রবার, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কালিয়াকৈরে অবৈধ ইট ভাটা ভেঙে দেয়ার পর, প্রশাসনকে ম্যানেজ করে পূনরায় চালু

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

মোঃ হাবিবুর রহমান :

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে অবৈধ ইট ভাটা মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আংশিক ভেঙে দিয়ে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করে বন্ধ করে দেয়ার পর, প্রশাসনকে ম্যানেজ করে পূনরায় অবৈধ ইট ভাটা তিনটি চালু করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে পরিবেশের ছারপত্রবিহীন এসব অবৈধ ইট ভাটা গুলোর বিরুদ্ধে অদৃশ্য কারনে জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকেও কোন প্রকার ব্যবস্থা নিচ্ছে না।
জানা যায়, কালিয়াকৈর উপজেলার আটাবহ ইউনিয়নের দরবাড়িয়া এলাকায় গত ০৪ ফেব্রুয়ারী রবিবার আয়োজন করে ৩টি অবৈধ ইট ভাটায় কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকীর নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এসময় ওই এলাকায় অবস্থিত তিনটি অবৈধ ইট ভাটা এনবিএম, এসবি স্টার,ও জেআরবিকে মোট ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয় এবং ইট ভাটার চিমনি না ভেঙ্গে দায়সারার মতো চুল্লীর দেয়ালের কিছু অংশ ভেঙে দিয়ে ইট ভাটা বন্ধের নির্দেশ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
গত ১১ ফেব্রুয়ারী বৃস্পতিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ভেঙে দেয়া অবৈধ ইট ভাটা গুলো আবার চালু করা হয়েছে।
স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলছে, প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতি বছর লোক দেখানো মোবাইল কোর্ট করে প্রশাসন চলে যাওয়ার পরেই ইট ভাটার মালিকরা আবার ইট ভাটা চালু করে। এর পর তাদের আর কোন সমস্যা হয় না। তাছাড়া ফসলি জমির মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে এসব অবৈধ ইটভাটায়। মোবাইল কোর্ট করে যদি অবৈধ ইট ভাটা বন্ধই না হয়, তাহলে মোবাইল কোর্টের কি দরকার। এবছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে তিনটি ইট ভাটায় মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করে বন্ধ করে দেওয়ার পর ইট ভাটার মালিকরা ইউএনও অফিসে দৌড়ঝাপ শুরু করে। তার কয়েকদিন পরেই দেখি ইট ভাটা আবার চালু হয়েছে।
এ বিষয়ে জেআরবি ইট ভাটার মালিক সোহেল রানা বলেন, প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তরকে ম্যানেজ করেই ইটভাটা চালু করেছি, কালিয়াকৈরে অনেক অবৈধ ইটভাটা চালু আছে তাদের যা হবে আমারও তাই হবে।
এ বিষয়ে কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকী বলেন, ইট ভাটা আবারো চালু করার বিষয়টি আমার জানা নেই, চালু করে থাকলে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন