শুক্রবার, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, বসন্তকাল | ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
শুক্রবার, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি | ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন, প্রতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যে সম্প্রীতির আভাস

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে চলছে প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীদের উত্তপ্ত বিতর্ক। বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম গণতন্ত্রের নেতৃত্ব দিতে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্যায়ে প্রবেশ করছেন প্রতিদ্বন্দ্বীরা। তবে রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সর্বশেষ টেলিভিশন বিতর্কে পূর্বের মতো একে অপরের সমালোচনা করেননি তারা। বরং বিভিন্ন ইস্যুতে তাদের মধ্যে সম্প্রীতির আভাস ছিল। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।
১৪ ফেব্রুয়ারি ভোটের আগে দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী এবং জরিপে এগিয়ে থাকা প্রার্থী প্রবো সুবিয়ান্টো, জাকার্তার গভর্নর সাবেক অ্যানিস বাসওয়েদান এবং সেন্ট্রাল জাভার সাবেক গভর্নর গঞ্জার প্রনোভোর বিতর্কে উপস্থিতি ছিল সৌহার্দ্যপূর্ণ। এর আগের বিতর্কগুলোতে একে অপরকে আক্রমণ করে বক্তব্য রেখেছিলেন।
বিদায়ী প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদোর ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে লড়ছেন প্রবো। এর ফলে ইন্দোনেশীয়দের মনে ক্ষমতাসীনদের রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ এবং দেশটির নব গণতন্ত্রে পারিবারিক রাজনীতির পুনরুত্থানের বিষয়ে উদ্বেগ রয়েছে।
একটি জনমত জরিপে দেখা গেছে, ৪৫ শতাংশ সমর্থন নিয়ে প্রবো এগিয়ে রয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বীদের সঙ্গে তার ব্যবধান ২০ পয়েন্টের বেশি।
সেন্ট্রাল জাভার সাবেক গভর্নর গঞ্জার প্রনোভো ভোটারদেরকে পারিবারিক রাজনীতির বিরুদ্ধে লড়াই করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, জাতির চেয়ে একটি পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।
সরকারের সামাজিক সহায়তা কর্মসূচির রাজনীতিকীকরণের সমালোচনা করেছেন অ্যানিস বাসওয়েদান। সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে, প্রবোর প্রচারে চাল বিতরণ করা হয়েছে। তবে এই কর্মসূচি থেকে কোনও প্রার্থীর উপকৃত হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছে সরকার।
অ্যানিস বলেছেন, আমাদের সচেতন হতে হবে যে সামাজিক সহযোগিতা উপকারভোগীদের জন্য, দাতাদের স্বার্থের জন্য নয়।
বিতর্কে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে জনস্বাস্থ্য, শিক্ষা ও সংস্কৃতির মতো বিভিন্ন বিষয়ে একমত হতে দেখা গেছে।
বিতর্ক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রবো বলেছেন, যদি কোনও আইডিয়া ভালো হয়, আমরা তা মেনে নেই এবং সমর্থন করি। আমরা মনে করি, তিন প্রার্থী ইন্দোনেশিয়ার জন্য লড়ছেন। আসুন, এই সম্প্রীতি বজায় রাখি।

Facebook
LinkedIn
Twitter
WhatsApp
Telegram
Email
Print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিজ্ঞাপন দিন